শনিবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২২,  ৯ মাঘ ১৪২৮,  Saturday, January 22, 2022


দ্যা বাংলা টাইম

আপডেট : 1 week ago

Thu, Jan 13, 2022 7:39 AM

 

বিদেশে রাষ্ট্রবিরোধী বক্তব্য দিলে পাসপোর্ট বাতিল হবে

Card image cap

বিদেশে বসে যারা রাষ্ট্রবিরোধী বক্তব্যসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ড করছেন তাদের তালিকা করে পাসপোর্ট বাতিল করা হবে।  গতকাল বুধবার সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত আইনশৃঙ্খলাসংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক সাংবাদিকদের বলেন, আমরা লক্ষ করছি, অনেকেই বিদেশে বসে মিথ্যাচার করছেন।  কোনো ব্যক্তির বিরুদ্ধে যে কেউ বক্তব্য দিতে পারেন।  কিন্তু তার বা তাদের বক্তব্যের কারণে যদি রাষ্ট্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তা হলে সেটি রাষ্ট্রদ্রোহ অপরাধ হবে।  আমরা দু’টি বিষয় সবসময় পার্থক্য করি, একটি হলো ব্যক্তি, আরেকটি হলো রাষ্ট্র।  যে কেউ আমার বিরুদ্ধে বক্তব্য দিতেই পারেন। কিন্তু তার দেয়া বক্তব্য যদি রাষ্ট্রের ক্ষতি করে তা হলে ব্যবস্থা নেবে সরকার।

মন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রবিরোধী এসব কাজ যারা বিদেশে বসে করছে, তাদের যাতে পাসপোর্ট বাতিল করা হয় সে জন্য আমরা পরামর্শ দিয়েছি।  তাদের তালিকা প্রস্তুত করা হোক, তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে সেগুলো কারা করছে, কী কী করছে এবং কোনটি রাষ্ট্রবিরোধী কাজ, সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে যারা সক্রিয়ভাবে এ কাজ করে যাচ্ছে তাদের পাসপোর্ট বাতিলের জন্য উদ্যোগ নিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এবং নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, বৈঠকে মাদক কারবারি ও মাদকাসক্তদের গ্রেফতার করা হলেও দুই দিন পর জামিন পেয়ে বের হয়ে যায়, এ বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।  এ-সংক্রান্ত আইন সংশোধনের বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।

তিনি বলেন, মাদক কারবারি ও সেবকদের বিষয়ে আইন সহজ থাকে।  সহজে তারা জামিন পেয়ে যায়।  সে জন্য আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।  যাদেরকে ধরা হয় দেখা যায়, দুই দিন পরই তারা সব জামিন পেয়ে যায়।  সে ক্ষেত্রে আমাদের আইনে কিছু দুর্বলতা আছে।  ভবিষ্যতে সেসব দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে আইনে জামিনের যে অধিকার, সেটির যাতে অপপ্রয়োগ না হয় এবং আইনের যে ত্রুটি আছে, সেগুলো দূর করার জন্য আইন কিভাবে সংশোধন করা যায়, সে ব্যাপারেও আমরা কথা বলেছি, সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এ ছাড়া সচেতনতার জন্য ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, পৌরসভা, সিটি করপোরেশন পর্যায়ে জনপ্রতিনিধিদের নেতৃত্বে মাদকবিরোধী কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।